এটা কীভাবে কাজ করে

স্বচ্ছতা সহযোগে দ্রুত এবং সহজ ধাপে নিজের সোনা বিক্রয় করুন !

গোল্ড পয়েন্টে যান

গ্রাহকেরা মুথুট গোল্ড পয়েন্টে নিজেদের সোনার মূল্যায়ন করতে দেন

সোনা পরিষ্কার

আপনার সামনেই আল্ট্রাসোনিক মেশিন দ্বারা আপনার সোনার সমস্ত ময়লা পরিষ্কার করা হয়

সোনার মূল্যায়ন

আপনার সামনেই অত্যাধুনিক এক্সআরএফ যন্ত্রের দ্বারা সোনার মূল্য, ওজন ও বিশুদ্ধতা পরীক্ষা করা হয়

সোনার দর

বর্তমান বাজার দর অনুযায়ী সোনার মূল্য নির্ধারণ করা হয়

তাৎক্ষণিক ভাবে নগদ লাভ করুন

সর্বাধিক ১০,০০০ টাকা পর্যন্ত নগদ লাভ করুন। ১০,০০০-এর বেশি পরিমান টাকা নেফট/আইএমপিএস/ আরটিএস-এর মাধ্যমে নিজের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে পান।

মুথুট গোল্ড পয়েন্ট অন্যান্য প্রথাগত গহনা বিক্রেতাদের চেয়ে কোথায় আলাদা।

Muthoot Gold Point Logo

আপনার সামনে পুরো প্রক্রিয়াটি ঘটবে
বনাম

প্রথাগত সংগঠিত প্লেয়ার্স কীভাবে কাজ করে
শুধুমাত্র সোনার মানের জন্য একাধিক স্তরের বৈজ্ঞানিক পরীক্ষার ব্যবস্থা রয়েছে
Valuation of your Goldআপনার সোনার মূল্য নির্ধারণ করা
কষ্টি পাথর সোনার আনুমানিক মান নির্ধারণ করে
সোনার সঠিক ওজন পেতে একটি আল্ট্রাসোনিক যন্ত্রের সাহায্যে সোনা পরিষ্কার করা হয়
Cleaning of your Goldআপনার সোনা পরিষ্কার করা
পরিষ্কার করে না এবং সরাসরি গলনার খরচে ছাড় দেয় না
ওজন স্কেলের উপর প্রদর্শিত হয় যা ৩ দশমিক পয়েন্ট (প্রতি গ্রাম) পর্যন্ত গ্রহণ করে থাকে
Weighing of your Goldআপনার সোনার ওজন পরিমাপ করা
ওজন স্কেলে দেখানো সর্বনিম্ন সংখ্যায় একটা মোটামুটি মূল্য নির্ধারণ করে দেয়
বর্তমান বাজার দর ব্যবহার করা হয়ে থাকে
Gold Rateসোনার হার
দিনের সর্বনিম্ন সোনার দর ব্যবহার করে
এমন উচ্চ-মানের ধাতু গলাবার পাত্র ব্যবহার করা হয় যা গলানোর পরে কোনও সোনা ধরে রাখে না
Melting of your Goldআপনার সোনার গলন
নিম্ন মানের ধাতু গলাবার পাত্র ব্যবহার করে যাতে গলানোর পরে সোনার কণাগুলি ভিতরে থেকে যায়
নগদ হিসাবে ১০,০০০ টাকা পর্যন্ত দেওয়া হয়। ১০,০০০ টাকার বেশি পরিমাণ অর্থ অবিলম্বে এনইএফটি / আইএমপিএস / আরটি এর মাধ্যমে আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে পে করা হয়। সর্বদা বিল প্রদান করা হয়।
Mode of Payment / Invoicingপেমেন্টের পদ্ধতি / বিল
কোনও বিল ছাড়াই নগদ অর্থ প্রদান করে

Muthoot Gold Point Logo

আপনার সামনে পুরো প্রক্রিয়াটি ঘটবে
  • শুধুমাত্র সোনার মানের জন্য একাধিক স্তরের বৈজ্ঞানিক পরীক্ষার ব্যবস্থা রয়েছে
  • সোনার সঠিক ওজন পেতে একটি আল্ট্রাসোনিক যন্ত্রের সাহায্যে সোনা পরিষ্কার করা হয়
  • ওজন স্কেলের উপর প্রদর্শিত হয় যা ৩ দশমিক পয়েন্ট (প্রতি গ্রাম) পর্যন্ত গ্রহণ করে থাকে
  • বর্তমান বাজার দর ব্যবহার করা হয়ে থাকে
  • এমন উচ্চ-মানের ধাতু গলাবার পাত্র ব্যবহার করা হয় যা গলানোর পরে কোনও সোনা ধরে রাখে না
  • নগদ হিসাবে ১০,০০০ টাকা পর্যন্ত দেওয়া হয়। ১০,০০০ টাকার বেশি পরিমাণ অর্থ অবিলম্বে এনইএফটি / আইএমপিএস / আরটি এর মাধ্যমে আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে পে করা হয়। সর্বদা বিল প্রদান করা হয়।

How Traditional Unorganized Players Work

প্রথাগত সংগঠিত প্লেয়ার্স কীভাবে কাজ করে
  • কষ্টি পাথর সোনার আনুমানিক মান নির্ধারণ করে
  • পরিষ্কার করে না এবং সরাসরি গলনার খরচে ছাড় দেয় না
  • ওজন স্কেলে দেখানো সর্বনিম্ন সংখ্যায় একটা মোটামুটি মূল্য নির্ধারণ করে দেয়
  • দিনের সর্বনিম্ন সোনার দর ব্যবহার করে
  • নিম্ন মানের ধাতু গলাবার পাত্র ব্যবহার করে যাতে গলানোর পরে সোনার কণাগুলি ভিতরে থেকে যায়
  • কোনও বিল ছাড়াই নগদ অর্থ প্রদান করে

আপনার সোনা বিক্রি করুন – অবিলম্বে নগদ পান!

মুথুট গোল্ড পয়েন্ট আপনার সোনা ক্রয় করার নিরাপদ, স্বচ্ছ এবং বৈজ্ঞানিকভাবে পরীক্ষিত উপায়গুলি সরবরাহ করে থাকে।

আমরা আপনাকে তাত্ক্ষণিক নগদে আপনার পুরানো সোনা বিক্রয় করার একটি অতুলনীয় অভিজ্ঞতা প্রদান করব। ভারত জুড়ে আমাদের ১১টি অত্যাধুনিক শাখা এবং মোবাইল ভ্যান (বর্তমানে কেবল মুম্বাইয়ে) নিখরচায় আপনার সোনা পরিষ্কার করার জন্য এবং এর সঠিক ওজন ও বিশুদ্ধতা যাচাই করার লক্ষ্যে সর্বশেষতম আল্ট্রাসোনিক এবং এক্সআরএফ মেশিন দ্বারা সুসজ্জিত। প্রক্রিয়াটি কেবল যে স্বচ্ছ তাই নয়, আমরা আপনার সোনাটি যে হারে কিনছি তা বাজারের হার অনুযায়ী হয়ে থাকে।

আজই আপনার কাছাকাছি মুথুট গোল্ড পয়েন্ট ব্রাঞ্চে যান

আরও জানুন
Sell Your Gold for Cash
Muthoot Gold Point Logo

ব্যবসায়ের ক্ষেত্রে কয়েক দশক ধরে উচ্চমানের কর্ম অনুশীলন, সামগ্রিক ভাবে গ্রাহক সন্তুষ্টি এবং বলিষ্ঠ পদক্ষেপে বিকাশের সঙ্গে সুখ্যাতি অর্জনকারী মুথুট পাপ্পাচান গ্রুপ হ’ল ঈশ্বর প্রদত্ত বিশ্বাস, সত্যতা ও স্বচ্ছতার মূল্যবোধগুলির উপর নির্মিত একটি উত্তরাধিকার এবং ঐতিহ্য এবং ঈশ্বরের অকুন্ঠিত অনুগ্রহে আজ যা শীর্ষস্থানীয় একটি ব্যবসায়িক গোষ্ঠীতে পরিণত হয়েছে।

More then 4,200 Branches across India

ভারত জুড়ে ৪,২০০- র বেশি শাখা

132 + years of Legacy

১৩২+ বছরের উত্তরাধিকার

Over 24,000 Employees Serving Millions of Customer

লক্ষাধিক গ্রাহকের পরিষেবায় নিয়োজিত ২৪,০০০- এর বেশি কর্মী

Walk in of over 1,00,000 Customers Per Day

দৈনিক ১,০০,০০০ গ্রাহকের আগমন

প্রশংসাপত্র

আমাদের গ্রাহক গল্প

Vijay Sharma Testimonial on Muthoot Gold Point

আমি আমার বাড়ি নির্মাণের জন্য কিছু গহনা বিক্রি করতে চেয়েছিলাম - আমার ঠিকাদার আমাদের প্রতারণা করেছিল। আমি একটি সরকারী বাসে এমজিপি বিজ্ঞাপনটি দেখলাম এবং আমার খুব প্রয়োজন হওয়ায় তাদের সাথে দেখা করার সিদ্ধান্ত নিই। আমার এর আগে সোনা বিক্রি করার অভিজ্ঞতা ভাল ছিল না। তবে, এমজিপি-র বিক্রয়কর্মীরা বসে ত.. আরও পড়ুন

বাসবারাজু

আমি কখনই মুথুট গোল্ড পয়েন্টকে ভুলতে পারিনা। আমি যদি সঠিক সময়ে এমজিপি সম্পর্কে জানতে না পারতাম তবে আমাকে হয়ত সবকিছু হারাতে হতে পারত। পরিবার এবং ব্যবসার ক্ষেত্রে, যখন আপনার সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন হয় তখনই আপনার কাছে অর্থ কম থাকে। এইসময়ে, যদি আপনার জমি, বাড়ি বা রুপো ও সোনা বিক্রি করার সুযোগ থাকে ত.. আরও পড়ুন

শ্রীনারায়ণ

আমি আমার বড় ছেলের ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের জন্য গত বছরের ফি দিতে চেয়েছিলাম, কিন্তু আমার কাছে পর্যাপ্ত টাকা ছিল না। আমার স্ত্রী আমাকে বছরের পর বছর ধরে যেসমস্ত রৌপ্যমুদ্রা এবং সোনার গহনা সংগ্রহ করেছিলেন তা বিক্রি করতে বলেছিলেন। আমরা স্থানীয় কয়েকটি দোকানে যাই আর অত্যন্ত হতবাক হয়ে যাই- ওরা সোনার মূল্যের.. আরও পড়ুন

বিজয় শর্মা

Amar Singh Testimonial on Muthoot Gold Point

আমার বাবার যখন জরুরি বাই-পাসের দরকার হয়েছিল তখন আমি আমার সমস্ত গহনাগুলি সরাসরি এমজিপিতে নিয়ে গিয়েছিলাম। আমি এর আগেও তাদের সাথে ডিল করেছি। চার বছর আগে আমার পার্লার স্থাপনের জন্য তাদের কাছ থেকে আমি প্রথমবার ঋণ নিয়েছিলাম। ভাগ্যক্রমে, আমি টাকাটি শোধ করতে এবং আমার সোনাও ফিরে পেয়েছিলাম। ডাক্তার আমাক.. আরও পড়ুন

অমর সিং

আমাদের লিখুন

আমি মুথুট এক্সিম প্রাইভেট লিমিটেড এবং অন্যান্য মুথুট পাপ্পাচান গ্রুপ সংস্থাগুলিকে (এর এজেন্ট / প্রতিনিধিসহ) টেলিফোন / মোবাইল / এসএমএস / ইমেল আইডির মাধ্যমে তাদের পণ্য বিষয়ক প্রস্তাব / প্রচার সম্পর্কে আমাকে কল / আমার সঙ্গে যোগাযোগ করতে অনুমোদন করছি।

Muthoot Gold Point Branch Locations
আপনাকে শুধুমাত্র আমাদের শাখাগুলিতে যেতে হবে আমেদাবাদ, ব্যাঙ্গালোর, বেরহামপুর, চেন্নাই, কোইম্বাটুর, দিল্লী, এর্নাকুলাম, কোলকাতা,
মাদুরাই, বিজয়ওয়াড়া ও ত্রিচি।